মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

সিলেট টেনিস ক্লাব

সিলেট টেনিস ক্লাব

টেনিস ক্লাব, সিলেট পুণ্যময় সিলেটের এক অতি পরিচিত এবং ঐতিহ্যের নাম। এটি ব্রিটিশদের সময় থেকে চলে আসা একটি ক্রীড়াভিত্তিক বিনোদনমূলক ক্লাব। প্রজাতন্ত্রের বিভিন্ন গুরম্নত্বপূর্ণ পদে অধিষ্টিত কর্মকর্তাগণ এবং সমাজের বিভিন্ন স্তরে প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তিবর্গের সমন্বয়ে এবং জেলা প্রশাসনের প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় টেনিস ক্লাব আজ এক গর্বের নাম। তবে  আজকের এই পর্যায়ে আসতে অতিক্রম করতে হয়েছে বন্ধুর পথ। বর্তমান জেলা প্রশাসক জনাব খান মোহাম্মদ বিলাল দায়িত্ব নেওয়ার পর ক্লাবের সার্বিক পরিবেশ ও কার্যক্রমে গতি সঞ্চারিত হয়। পূর্বে জেলা প্রশাসকের পক্ষে একজন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক দায়িত্ব পালন করতেন। উক্ত সিদ্ধামেত্ম টেনিস ক্লাবের কার্যক্রম চললেও কাঙ্খিত মাত্রায় পৌছাতে পারেনি। কিন্তু বর্তমান কার্যনির্বাহী কমিটিতে জেলা প্রশাসক সভাপতির দায়িত্ব গ্রহণ করায় ক্লাবের সার্বিক পরিবেশ ও কার্যক্রমে গুণগত পরিবর্তন এসেছে।

টেনিস ক্লাব, সিলেট এর মান উন্নয়নের লক্ষে একটি কার্যনির্বাহী কমিটি গঠিত হয়। ৩০.০৯.২০১২ অফিসার্স ক্লাবে ২৪ সদস্যের কার্যনির্বাহী কমিটিতে জেলা প্রশাসক জনাব মোঃ শহিদুল ইসলাম সভাপতি ও জনাব হামমাদ রব চৌধুরীকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে। কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন- পুলিশ সুপার, সিলেট (সহ-সভাপতি) অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক), সিলেট (সহ-সভাপতি), জনাব সামুন মাহমুদ খান (সহ-সভাপতি), জনাব মাহিউদ্দিন আহমদ সেলিম (সহ-সভাপতি), জনাব হামমাদ রব চৌধুরী (সাধারণ সম্পাদক), জনাব আতাউল করিম সেলিম (যুগ্ম সম্পাদক), জনাব রমেন্দ্র কুমার সিংহ (যুগ্ম সম্পাদক), জনাব ইসফাক আহমেদ ডেনী (ট্রেজারার), এডভোকেট আজিজুল মালিক চৌধুরী (সদস্য), জনাব আইয়ুব আলী (সদস্য), জনাব শেখ নাজমুল হক (সদস্য), জনাব কয়েস লোদী (সদস্য), জনাব ইমরান চৌধুরী (সদস্য), জনাব মহিউদ্দিন (সদস্য), জেল সুপার জনাব টিপু সুলতান (সদস্য), জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক জনাব মাইন উদ্দিন (সদস্য), সহকারী কমিশনার কাজী আরিফুর রহমান (সদস্য), জনাব ইব্রাহিম খান (সদস্য), সিলেট পাসপোর্ট অফিসের উপ-পরিচালক জনাব তৌফিকুল ইসলাম খান (সদস্য), সিলেট বিভাগীয় কমিশনারের একামত্ম সচিব জনাব মোঃ মাছুম বিলস্নাহ (সদস্য), সহকারী কমিশনার বেগম ইসরাত জাহান (সদস্য), নেজারত ডেপুটি কালেক্টর (সদস্য) ও জনাব নিরঞ্জন পাল (সদস্য)।

টেনিস ক্লাব, সিলেট এর স্বার্থ সংশিস্নষ্ট বিষয়ে সচেতন, আর্থিকভাবে সক্ষম ও আগ্রহী ব্যক্তিরা তিন লক্ষ টাকা অনুদান দিয়ে ক্লাবের সদস্য হতে পারেন। টেনিস মাঠের উন্নয়নের জন্য সিলেট সিটি কর্পোরেশন ও জেলা পরিষদের সহযোগিতা কামনা করার সিদ্ধামত্ম ইতোমধ্যে কার্যকরী পরিষদে গৃহীত হয়েছে।